অনলাইনে সবথেকে বেশি ছাড়ে গ্রোসারী আইটেম কোথায়, কখন ও কিভাবে পাবেন?

5/5 - (3 জন রেটিং করেছেন)

আরে দাদা দাদা, মুদিখানার জিনিস বা গ্রোসারী আইটেমগুলো কোথা থেকে কিনছেন? পাড়ার দোকান থেকে? ওরা কি আপনার জিনিসগুলো ডেলিভারি বক্সে সুন্দর করে সাজিয়ে কোনও এক্সট্রা খরচ ছাড়া হোম ডেলিভারি দিচ্ছে? আপনি কি অনেক ছাড়ে কম দামে জিনিসগুলো পাচ্ছেন? ছাড়ের উপর ছাড়ের উপর ছাড়, মানে সঙ্গে কুপন ও কার্ড ডিসকাউন্ট দিচ্ছে? বা ফ্রিতে কোনও প্রোডাক্ট দিচ্ছে? তাছাড়া বাড়িতে মাল নিয়ে চলে আসার পর কোনো সমস্যা হলে সেটা কি ওরা হাসিমুখে এন্টারটেন করছে বা টাকা ফেরত দিচ্ছে?

উপরের প্রশ্নগুলোর উত্তর যদি সন্তোষজনক না হয় তাহলে একবার অনলাইনে গ্রোসারী অর্ডার করে দেখুন। নতুন যুগের নতুন ট্রেন্ড-এ আপনিও অংশ নিন। অন্যান্য জিনিসের সাথে সাথে আস্তে আস্তে অনলাইনে গ্রোসারী আইটেম শপিং-ও ধীরে ধীরে বাড়ছে। আর বাড়বে নাই বা কেন, অনলাইনে গ্রোসারী কেনার সুবিধা যে অনেক…

অনলাইনে গ্রোসারী আইটেম কেনার সুবিধা

  • অনলাইনে যেকোনো অর্ডার করার প্রধান সুবিধা বাড়িতে বসেই মোবাইল বা কম্পিউটার থেকে ঝটপট অর্ডার করে দেওয়া যায়।
  • গ্রোসারী আইটেম মানে সাধারণত বেশ ভারী হয় আর ভারী জিনিস বাড়িতে বসে ফ্রীতে হোম ডেলিভারি পাওয়ার মজাটাই আলাদা।
  • এখন ই-কমার্স ওয়েবসাইট গুলোর ডেলিভারি স্পিড-ও বেশ ভালো। একদিন কিংবা বেশি হলে দুদিন, তার মধ্যেই ওরা সাধারণত ডেলিভারি করে দেয়।
  • প্রোডাক্ট এমআরপিতে ডিসকাউন্ট, বেশি মাল কিনলে ডিসকাউন্ট, কুপনের ডিসকাউন্ট এবং ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডের ডিসকাউন্ট পাওয়া যায়। এছাড়া কখনো কখনো ফ্রি বা নামমাত্র মূল্যেও প্রোডাক্ট পাওয়া যায়।
  • প্রোডাক্ট ডেলিভারির পর প্রোডাক্টে কোনরকম সমস্যা হলে রিফান্ড বা প্রোডাক্ট ফেরত দেওয়ার সুবিধা পাওয়া যায়।
আরও পড়ুনঃ  গুগলে অ্যাডের মাধ্যমে জালিয়াতি। আমার নিজস্ব অভিজ্ঞতা

তবে এক্ষেত্রে অসুবিধাও যে কিছু নেই তা না…

অনলাইনে গ্রোসারী আইটেম কেনার অসুবিধা

  • একসাথে অনেক টাকার অর্ডার দিলে তবে সবথেকে বেশি ছাড়টা পাওয়া যায়।
  • ইনস্ট্যান্ট ডেলিভারি পাওয়া যায় না।
  • কিছু লোকাল আইটেম পাওয়া যায় না।
  • কখনো কখনো পছন্দের ব্র্যান্ডের পছন্দের প্রোডাক্ট আউট অফ স্টক থাকে।
  • দাম বেশ ওঠানামা করে।
  • কিছু কিছু নতুন ব্র্যান্ডের আইটেমের কোয়ালিটিতে সন্তুষ্টি নাও আসতে পারে।

গ্রোসারী আইটেম কেনার জন্য সেরা ওয়েবসাইট / অ্যাপ

এই মুহূর্তে সারা ভারতব্যাপী অনলাইন গ্রোসারীর ব্যবসা আছে এ ধরনের চারটে ওয়েবসাইট উল্লেখযোগ্য। গ্রোসারীর জন্য অ্যামাজনের বিভাগের নাম অ্যামাজন ফ্রেস আর ফ্লিপকার্টের গ্রোসারী সেকশন এর নাম ফ্লিপকার্ট গ্রোসারী। ভারতের সবথেকে বড় এই দুই ই-কমার্স ওয়েবসাইট ছাড়াও টাটার বিগ বাস্কেট এবং রিলায়েন্সের জিও মার্ট থেকেও অনলাইনে গ্রোসারী কেনা যায়। তবে এই মুহূর্তে সার্ভিস বা জনপ্রিয় প্রোডাক্টের লভ্যতা, দাম বা ছাড়, ডেলিভারি স্পিড, আফটার সেল সার্ভিস ইত্যাদি সবদিক বিচার করলে ফ্লিপকার্ট ও অ্যামাজনের সমকক্ষ সার্ভিস দিতে বিগ বাস্কেট ও জিও মার্টের এখনো অনেক সময় লাগবে। তাই আমি এখানে অ্যামাজন ফ্রেস এবং ফ্লিপকার্ট গ্রোসারীর কথাই বলবো।

কেনার সব থেকে ভালো সময় 

অ্যামাজন এবং ফ্লিপকার্ট দুই ক্ষেত্রেই গ্রোসারী বা মুদিখানার বাজার করার সবথেকে ভালো সময় হচ্ছে প্রত্যেক মাসের প্রথম সপ্তাহ। কারণ প্রতিমাসের প্রথম সপ্তাহ-তেই সাধারণত দুই ক্ষেত্রেই বিশেষ বিশেষ কিছু অফার দেওয়া হয়। মাসের অন্যান্য সময়ে বা বিশেষ সেল-গুলোর সময়ও এ ধরনের অফার থাকে তবে প্রতি মাসের শুরুর সময়ের ব্যাপারটা কম্পালসারি হিসেবে থাকে। এই সময়টাকে অ্যামাজনে সুপার ভ্যালু ডে-স আর ফ্লিপকার্টে সুপার সেভার ডে-স বলে।

অ্যামাজন ফ্রেশ সুপার ভ্যালু ডে
অ্যামাজন ফ্রেশ সুপার ভ্যালু ডে
ফ্লিপকার্ট গ্রোসারী সুপার সেভার ডে
ফ্লিপকার্ট গ্রোসারী সুপার সেভার ডে

মিনিমাম অর্ডারের প্রয়োজনীয়তা ও ডেলিভারি ফী

অ্যামাজন ফ্রেশ থেকে গ্রোসারী অর্ডার করতে হলে কমপক্ষে 249 টাকার অর্ডার করতে হয় আর নন প্রাইম মেম্বার হলে ফ্রিতে ডেলিভারির জন্য কমপক্ষে 499 টাকার অর্ডার করতে হয় অন্যথায় 59 টাকার ডেলিভারি ফী দিতে হয়। প্রাইম মেম্বারদের কোন ডেলিভারি লাগে না।

ফ্লিপকার্ট গ্রোসারীর মিনিমাম অর্ডার ভ্যালু 300 টাকা আর ডেলিভারি ফ্রি করতে অর্ডার করতে হয় 600 টাকার। অন্যথায় 50 টাকা ডেলিভারি চার্জ দিতে হয়।

আরও পড়ুনঃ  অ্যামাজন থেকে অবিশ্বাস্য ছাড়ে, খুব সস্তা দামে দুর্দান্ত কোয়ালিটির ব্র্যান্ডেড প্রোডাক্ট বা জিনিস কিনে টাকা বাঁচাবার উপায়।

কেমন ধরনের অফার পাওয়া যায়?

অ্যামাজন ও ফ্লিপকার্টে এমনিতে এম আর পি-র উপর ছাড় তো সব সময়েই থাকে। তার উপরে…

অ্যামাজনে

অ্যামাজনে সাধারণত মাসের প্রথম সপ্তাহে 10-15% ক্যাশব্যাকের কুপন পাওয়া যায়। সাধারণত 1-2 টো কুপন থাকে যার মধ্যে সাধারণত একটা কুপন হয় 1500 টাকার কেনাকাটায় 150-200 টাকার ক্যাশব্যাকের আর অন্য আরেকটা 2000-2500 টাকার কেনাকাটায় 250-300 টাকার ক্যাশব্যাকের।

অ্যামাজন কুপন 1
1 নম্বর কুপন
অ্যামাজন কুপন 2
2 নম্বর কুপন

এর সাথে বিভিন্ন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ডে 2000-2500 টাকার বেশি কেনাকাটায় এক্সট্রা 10% ইনস্ট্যান্ট ছাড়ের অফারও থাকে। আর অ্যামাজন পে আইসিআইসিআই ক্রেডিট কার্ডে অল টাইম 5% ক্যাশব্যাকের কথা তো আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না!

অ্যামাজনে ব্যাংকের কার্ডে ছাড়
কার্ড ডিসকাউন্ট

মানে এই সময়ে কেনাকাটা করলে অ্যামাজনে ডিসকাউন্টেড প্রোডাক্টের ওপর অতিরিক্ত 15% থেকে 25-30% ছাড় পাওয়া যায়।

এই ছাড় ছাড়াও কখনও কখনও কোনও কোনও প্রোডাক্টে প্রোডাক্ট স্পেসিফিক কুপনও থাকে।

ফ্লিপকার্টে

আর ফ্লিপকার্টে বিভিন্ন ব্যাংকের কার্ডে 2000-এর টাকার উপরের অর্ডারে 10% ইনস্ট্যান্ট ডিসকাউন্ট থাকে। আর ফ্লিপকার্ট অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক ক্রেডিট কার্ডে 5% ইনস্ট্যান্ট ডিসকাউন্ট ও 5% ক্যাশব্যাক পাওয়া যায় এবং গ্র্যাবডিলসের মাধ্যমে কিনলে আরো 5% এক্সট্রা ক্যাশব্যাক পাওয়া যায়।

ফ্লিপকার্টের অফার
ফ্লিপকার্টের অফারগুলো

এছাড়াও ফ্লিপকার্টে সাধারণত 1000 টাকার উপরে কেনাকাটায় কিছু ফ্রি আইটেম থাকে যেগুলো 1-2 টাকা পেমেন্ট করেই কেনা যায়। আবার কখনও 1000 টাকার কেনাকাটায় 50 টাকা এক্সট্রা ছাড় ও পাওয়া যায়।

ফ্লিপকার্ট গ্রোসারী ফ্রী আইটেম
ফ্লিপকার্ট গ্রোসারী স্টিল ডিল

সুতরাং এক্ষেত্রেও ফ্রি আইটেমের ভ্যালু হিসাব করলে অতিরিক্ত মোট 12-20% ছাড় পাওয়া যায়।

এই ছাড় ছাড়াও কখনও কখনও কোনো কোনো প্রোডাক্ট বান্ডিল অফারে এক্সট্রা ছাড় পাওয়া যায়।

কোন কোন ধরনের প্রোডাক্টে কত ছাড় পাওয়া যায় 

আমি দুই ওয়েবসাইটেই উদাহরণ হিসাবে কিছু কিছু প্রোডাক্টের তুলনামূলক দাম আমি এখানে তুলে ধরব। তাতে করে দুই ওয়েবসাইটে কেমন দামে গ্রোসারী কিনতে পাওয়া যায় তার একটা ধারণা আপনার তৈরি হবে।

প্রত্যেকটা দামের উপর অ্যামাজনের ক্ষেত্রে বেশিরভাগ সময় 20% ও ফ্লিপকার্টের ক্ষেত্রে 12-15% এক্সট্রা ছাড় প্রযোজ্য। মানে নীচে যে দামের লিস্ট থাকলো তার উপর ইনস্ট্যান্ট ছাড় এবং ক্যাশব্যাক হিসাবে প্রতি 100 টাকায় আরও 12 থেকে 20 টাকা অতিরিক্ত ছাড় পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুনঃ  ব্যাংক জালিয়াতির 10 ধরণ। জানুন আর সঞ্চয়ের টাকা রক্ষা করুন।
প্রোডাক্টএমআরপিঅ্যামাজনে দামফ্লিপকার্টে দাম
1 কেজি ফরচুন সোয়া বড়ি200149140
1 কেজি টাটা ছোলার ডাল125100100
1 কেজি নিজ/নন- ব্র্যান্ডেড ছোলার ডাল9574/82
1 কেজি হিমালয়ান নেটিভস গোটা মুগ219140128
1 কেজি নিজ/নন- ব্র্যান্ডেড গোটা মুগ130111
5 কেজি আশীর্বাদ সিলেক্ট আটা326275287
5 কেজি দাওয়াত রোজানা সুপার বাসমতী চাল486349349
1 লিটার ফরচুন সর্ষের তেল185157158
1 লিটার ইমামি সর্ষের তেল210166156
1 লিটার ইমামি রাইস ব্রান তেল190137137
1 লিটার ফরচুন সয়াবিন তেল180145157
1 লিটার ধারা সয়াবিন তেল195146143
1 লিটার ইমামি সূর্যমুখী তেল210149
1 লিটার আশীর্বাদ ঘি785605698
1.2 কেজি কেলগস কর্ণফ্লেক্স460340350
1.3 কেজি সাফোলা ওটস215185188
800 গ্রাম উইনগ্রীন্স মেয়নিজ22596
950 গ্রাম ডেল্মন্টে টমেটো সস13099
100 গ্রাম টাটা গোল্ড কফি475232323
750 গ্রাম টাটা গোল্ড চা470280
2 লি কোল্ড ড্রিঙ্কস806865
5 কেজি সার্ফ এক্সেল ইজি ওয়াশ770586
4 পিস কোলগেট জেন্টল সেনসিটিভ টুথব্রাশ14585

প্রতিটা দাম এই আর্টিকেল লেখার সময়ের। দামগুলো কিন্তু সবসময় পরিবর্তন হয়, তাই অন্য সময় পুরোপুরি না মেলাটাই স্বাভাবিক। আর উপরের উদাহরণগুলো বাদেও হাজারো প্রোডাক্ট তো আছেই কিন্তু আরও বেশি জানতে হলে আপনাকে নিজেকে ওয়েবসাইটগুলো ভিজিট করেতে হবে। 

ডেলিভারি এক্সপিরিয়েন্স

দুই ওয়েবসাইটেই ডেলিভারির সময় একই রকম লাগে। অ্যামাজনের ডেলিভারি সাধারণত পিচবোর্ডের কার্টনে হয়। ফ্লিপকার্টের ডেলিভারি হয় প্লাস্টিক বক্সের মাধ্যমে। ডেলিভারিবয় ওই বাক্স থেকে প্রোডাক্ট গুলো নামিয়ে দিয়ে বাক্স নিয়ে চলে যায়। তো এই ব্যাপারে অ্যামাজনের সার্ভিস বেশি ভালো। আর অ্যামাজনের ডেলিভারিবয় দের ব্যবহারও বেশি ভালো।

আফটার সেল সার্ভিস 

ডেলিভারি নেওয়ার পর কোনও প্রোডাক্টে কোনোরকম সমস্যা হলে অ্যামাজন সাধারণত রিফান্ড করে আর ফ্লিপকার্টের ক্ষেত্রে রিটার্ন নিয়ে যায়। দুই ক্ষেত্রেই এব্যাপারে কোনও সমস্যা নেই। তবে অ্যামাজনের কাস্টমার সার্ভিসের ব্যাপারে কোনও কথা হবেনা!

শেষ করার আগে…

আমি নিজে দুই ওয়েবসাইটই ব্যবহার করি। কখনও তুলনামূলক দাম দেখে বা কখনও কি কি জিনিস বা কতটা জিনিস কিনতে হচ্ছে তার উপর ভিত্তি করে কোথায় অর্ডার দেব সেটা ঠিক করে নিই। অ্যামাজনে সবথেকে বেশি ছাড়টা পেতে একটু বেশি অর্ডার দিতে হয়। ফ্লিপকার্টে ওদের ক্রেডিট কার্ডটা থাকলে সবথেকে বেশি সুবিধেটা পাওয়া যায়।

আপনাকেও আপনার কাছে কি কার্ড আছে বা আপনার প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী নিজের পছন্দের সাইট বেছে নিতে হবে। 

আজ তাহলে এখানেই শেষ করি। ভালো থাকবেন। টা টা 🙂

মন্তব্য করুন